মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C

সরকারি আদর্শ শিশু বিদ্যালয়, কিশোরগঞ্জ।

  • সংক্ষিপ্ত বর্ণনা
  • প্রতিষ্ঠাকাল
  • ইতিহাস
  • প্রধান শিক্ষক/ অধ্যক্ষ
  • অন্যান্য শিক্ষকদের তালিকা
  • ছাত্র-ছাত্রীর সংখ্যা (শ্রেণীভিত্তিক)
  • পাশের হার
  • বর্তমান পরিচালনা কমিটির তথ্য
  • বিগত ৫ বছরের সমাপনী/পাবলিক পরীক্ষার ফলাফল
  • শিক্ষাবৃত্ত তথ্যসমুহ
  • অর্জন
  • ভবিষৎ পরিকল্পনা
  • ফটোগ্যালারী
  • যোগাযোগ
  • মেধাবী ছাত্রবৃন্দ

কিশোরগঞ্জ জেলা শহরের পুরাতন কোর্ট রোডে আলোরমেলা নামক স্থানে চোখে পড়বে বিশাল বিশাল মেহগনি, সেগুন গাছ, যেন এক পায়ে দাঁড়িয়ে সব গাছ ছাড়িয়ে উঁকি মারে আকাশে-আর এর ফাঁকে ফাঁকেই আম্র পলস্নবের লুকোচুরি। আর এই ঘন সবুজের মাঝে দাঁড়িয়ে আছে একটি দ্বিতল ভবন। যার দেয়ালে বড় বড় অক্ষরে লেখা ‘‘সরকারি আদর্শ শিশু বিদ্যালয়’’। এর পশ্চিম পাশে রয়েছে কিশোরগঞ্জ পৌরসভার বিশাল দীঘি, পূর্ব পাশে পীচঢালা মসৃণ পথ এঁকে বেঁকে চলে গেছে অনেক দূর। উত্তর-দক্ষিণে রয়েছে আবাসিক এলাকা। বিভিন্ন গাছের শীতল পরশে রঙ-বেরঙের পাতা বাহারের সংগে মিশে প্রায় এক হাজার আটশত সবুজ প্রাণ শিশুর কলকাকলীতে মুখরিত বিদ্যালয়টি সবার ভাল লাগার প্রতীক হয়ে সগৌরবে মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়ে আছে। বর্তমানে স্কুলটি কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলার ‘‘মডেল স্কুল’’ এবং কিশোরগঞ্জ তথা সমগ্র বাংলাদেশের সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলোর মধ্যে অন্যতম প্রধান বিদ্যালয় হিসেবে পরিচিত।

২৭ জুলাই ১৯৬৭খ্রি.

১৯৬৭ সালে কিশোরগঞ্জে ছোট্ট সোনামনিদের জন্য মানসম্মত একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের অভাব কিশোরগঞ্জের আপামর জনসাধারণ অনুভব করেন। তৎকালীন মহকুমা প্রশাসক জনাব এস.এ. বারী, পৌর চেয়ারম্যান আব্দুল আওয়াল খান, ডা. শরফুদ্দীন আহমেদ, স্থানীয় এস.ভি সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা বেগম রাজিয়া হোসাইন, অধ্যক্ষ ওয়াসীমুদ্দীন, অধ্যাপক জিয়া উদ্দিন আহমেদ প্রমুখ বিদ্যোৎসাহী ব্যক্তিবর্গের উৎসাহ-উদ্দীপনা ও সক্রিয় ভূমিকায় কিশোরগঞ্জ কিন্ডার গার্টেন নামে এই বিদ্যালয়টি আত্মপ্রকাশ করে স্থানীয় এস.ভি. বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে। তখন বিদ্যালয়ের সময়সূচী ছিল সকাল ৬টা থেকে ১০টা পর্যমত্ম। কিশোরগঞ্জ পৌরসভার প্রদত্ত জমিতে ১৯৬৭ সনের ২৭ জুলাই বৃহস্পতিবার এক বর্ষণমুখর দিনে ময়মনসিংহের তৎকালীন জেলা প্রশাসক জনাব খোরশেদ আলম, সি.এস.পি. বিদ্যালয়ের দ্বিতল ভবনের ভিত্তি প্রসত্মর স্থাপন করেন। মাত্র ৫৫ জন ছাত্রছাত্রী ও অধ্যক্ষ মিস জহিরম্নন্নেছা, মিসেস খালেদা ইসলাম, মিসেস সাজেদা বেগম এই তিন জন শিক্ষক নিয়ে বিদ্যালয়ের যাত্রা শুরু। বিদ্যালয়ের ভবন নির্মাণে স্বতস্ফুর্তভাবে এগিয়ে এলেন এলাকাবাসী। কেউ দিলেন নগদ অর্থ, কেউ দিলেন ইট, কেউ দিলেন সিমেন্ট। বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটি প্রত্যেকের দোরগোড়ায় গিয়ে সাহায্য চাইলেন। বিদ্যালয়ের ভৌত সুবিধার জন্য স্থানীয় ব্যাংক ও বিদ্যোৎসাহী ব্যক্তিদের কাছে আবেদন জানানো হল। তৎকালীন ইউনাইটেড ব্যাংক পাঁচ হাজার টাকার আসবাবপত্র দিয়ে শ্রেণী কক্ষগুলো সুসজ্জিত করে। কিন্তু আর্থিক অসুবিধার জন্য বিদ্যালয় পরিচালনা ব্যাহত হয়। ছাত্র ছাত্রীর সংখ্যা আশানুরূপ বৃদ্ধি না পাওয়ায় পৌরসভা বিদ্যালয় পরিচালনার দায়িত্বভার গ্রহণ করে। এবার বিদ্যালয়ের নামকরণ হলো ‘‘কিশোরগঞ্জ আদর্শ শিশু বিদ্যালয়’’। ১৯৭৩ সালে সরকার ঘোষিত নীতিমালায় আবারও নাম পরিবর্তন হয়ে স্কুলটির নামকরণ হয় ‘‘সরকারী আদর্শ শিশু বিদ্যালয়’’।

ছবি নাম মোবাইল ইমেইল
মোঃ মুখলেছুর রহমান ভূঁইয়া 0 adarsha_shishu@yahoo.com

ছবি নাম মোবাইল ইমেইল

ছাত্র-ছাত্রীর সংখ্যা (শ্রেণীভিত্তিক)

সাল

শ্রেণী

বালক

বালিকা

মোট

২০১২

শিশু

৭২

৮৩

১৫৫

১ম

১৪৭

১৬৩

৩১০

২য়

১৫৪

১৫৮

৩১২

৩য়

১৭৩

১৩৬

৩০৯

৪র্থ

১৬৫

১৭৯

৩৪৪

৫ম

২০৬

১৭৪

৩৮০

মোট =

৯১৭

৮৯৩

১৮১০

 

 

পাশের হার

সাল

শ্রেণী

বার্ষিক পরীক্ষায় অংশ গ্রহন

বার্ষিক পরীক্ষায় উত্তীর্ণ

শ্রেণীওয়ারী পাশের শতকরা হার

 

 

২০১১

শিশু

১৩৯

১৩৯

১০০%

১ম

২৭৬

২৭৬

১০০%

২য়

২৭৪

২৭১

৯৯%

৩য়

৩১৭

৩১১

৯৮%

৪র্থ

৩৮২

৩৭৩

৯৭.৫%

৫ম

৩২১

৩২১

১০০%

 

 

৯৯%

বিগত ৫ বছরের সমাপনী

সাল

মোট পরীক্ষার্থী

উত্তীর্ণ

অনুত্তীর্ণ

পাশের হার

২০০৭

২৪৪

২৪৪

Í

১০০%

২০০৮

২২৬

২২৬

Í

১০০%

২০০৯

২৬২

২৬২

Í

১০০%

২০১০

২৮০

২৮০

Í

১০০%

২০১১

৩২১

৩২১

Í

১০০%

বিগত ৫ বছরের প্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষা

পাবলিক পরীক্ষার ফলাফল

সাল

মোট পরীক্ষার্থী

উত্তীর্ণ

অনুত্তীর্ণ

পাশের হার

২০০৭

২৪৪

২৪৪

Í

১০০%

২০০৮

২২৬

২২৬

Í

১০০%

২০০৯

২৬২

২৬২

Í

১০০%

২০১০

২৮০

২৮০

Í

১০০%

২০১১

৩২১

৩২১

Í

১০০%

প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষা

শিক্ষা বৃত্তির তথ্য

সাল

বৃত্তপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীর সংখ্যা

 

১৯৭৩

১৯৭৪

১৯৭৫

১৯৭৬

১৯৭৭

১০

১৯৭৮

১১

১৯৭৯

১৬

১৯৮০

১৯

১৯৮১

১০

১৯৮২

১২

১৯৮৩

২১

সাল

ট্যালেন্টপুল

সাধারন

মোট

১৯৮৪

১৬

২১

১৯৮৫

২২

৩০

১৯৮৬

১৫

২৪

১৯৮৭

১৯৮৮

১১

১৯৮৯

১৯৯০

১৩

১৯৯১

১০

১৯৯২

১০

১৩

১৯৯৩

১৩

১৯৯৪

১৯৯৫

১২

১৯৯৬

২১

২৫

১৯৯৭

১৯৯৮

১৯৯৯

২০০০

২০০১

২০০২

১১

২০০৩

২০০৪

২৭

৩৩

২০০৫

১৯

২৪

২০০৬

২১

২৬

২০০৭

২৬

৩০

২০০৮

২৪

২৯

২০০৯

৪২

৪৭

২০১০

২০

২৫

২০১১

৩২

৩৯

১৯৭৩সন থেকে প্রাথমিক বৃত্তি পরীক্ষা

অর্জন

সাল

বিষয়

শিক্ষার্থীর নাম

শ্রেণী

১৯৮৬

সংগীত

তানজিনা নাসরিন শিমু

৫ম

নৃত্য

শামীম আরা বেগম রম্নমা

৫ম

উপস্থিত বক্তৃতা

ফারজানা মেহের মিষ্টি

৫ম

১৯৮৭

আবৃত্তি

মৌসুমী হোসাইন

৪র্থ

১৯৯০

উপস্থিত বক্তৃতা

খায়রম্নন নাহার শুচি

৫ম

১৯৯১

আবৃত্তি

কায়াস মাহমুদ

৪র্থ

১৯৯৩

নৃত্য

তানজিনা শাহরিন পাপড়ি

৫ম

১৯৯৪

আবৃত্তি

নুসরাত জাহান ফাতেমা

৫ম

সংগীত

সত্যব্রত দাস মিঠুন

৩য়

একক অভিনয়

মোহাম্মদ উলস্নাহ

৫ম

নৃত্য

ফারজানা জাহান ঊর্মি

৫ম

১৯৯৫

সংগীত

শর্মিষ্ঠা দাস মৌ

৩য়

নৃত্য

দেবারতী ভট্টাচার্য্য

৫ম

১৯৯৬

জাতীয় মৌসুমী প্রতিযোগিতায় জাতীয় পর্যায়ে ১ম স্থান অধিকারী ছাত্র-ছাত্রী

আবৃত্তি

শর্মিষ্ঠা দাস মৌ

৪র্থ

দেশাত্নবোধক জারীগান

সত্যব্রত দাস মিঠুন ও তার দল

৫ম

১৯৯৭

সংগীত

ঊমি দাশ নিপা

৫ম

জাতীয় পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ ম্যানেজিং কমিটি

সরকারী আদর্শ শিশু বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটি

 

২০০০

সংগীত

আফরিদ আলাভী

৫ম

২০০২

শ্রেষ্ঠ কাব

আফজালুল মোত্তাকী

৫ম

শ্রেষ্ঠ কাব সংগঠন

সরকারী আদর্শ শিশু বিদ্যালয় কাব দল

 

২০০৩

জাতীয় মৌসুমী প্রতিযোগিতায় জাতীয় পর্যায়ে ২য় স্থান অধিকারী ছাত্রীগণ

 

দেশাত্নবোধক জারীগান

শেখ তাবাসসুম আহমদ অর্পিতা ও

তার দল

 

২০০৩

শ্রেষ্ঠ কাব লিডার

বাদল চন্দ্র সরকার, সহ: শিক্ষক, সরকারী আদর্শ শিশু বিদ্যালয়

 

২০০৭

চিত্রাঙ্কন

(১ম স্থান অধিকারী)

নূসরাত জাহান নরীন

৫ম

২০০৭

জেলার শ্রেষ্ঠ প্রধান শিক্ষক

জনাব মোঃ মুখেলেছুর রহমান ভূঁইয়া

প্রধান শিক্ষক, সরকারি আদর্শ শিশু বিদ্যালয়

 

২০০৯

চিত্রাঙ্কন

(২য় স্থান অধিকারী)

নবোদয় সাহা সি্ণগ্ধা

৫ম

২০১০

সংগীত

(৩য় স্থান অধিকারী)

তাসনিয়া তারান্নুম অর্জিতা

৫ম

     

জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহে জাতীয় পর্যায়ে পুরস্কার প্রাপ্ত কৃতি শিক্ষার্থীদের নামের তালিকা

 


 

অর্জন

২০১২ সালে আন্তঃ বিদ্যালয় ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতায় জাতীয় পর্যায়ে পুরস্কুত শিক্ষার্থী

সাল

বিষয়

শিক্ষার্থীর নাম

শ্রেণী

২০১২

আবৃত্তি

(১ম স্থান অধিকারী)

রাফিদ বিন ওয়ালী উলস্নাহ

৫ম

চিত্রাঙ্কন

(১ম স্থান অধিকারী)

রাফিদ বিন ওয়ালী উলস্নাহ

৫ম

চিত্রাঙ্কন

(২য় স্থান অধিকারী)

সুস্মিতা সাহা মাটি

২য়

সংগীত

(৩য় স্থান অধিকারী)

সুস্মিতা সাহা মাটি

২য়

আবৃত্তি

(২য় স্থান অধিকারী)

তানজিল হাসান সিফাত

২য়

 

ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা

১৮৫০ জন ছাত্র-ছাত্রীর স্থান সংকুলান হয় না বিধায় বিদ্যালয়টিকে একটি ৫ তলা ভবনে উন্নীত করার পরিকল্পনা আছে। তাছাড়া প্রত্যেকটি শ্রেণী কক্ষে মাল্টিমিডিয়া প্রজেক্টরের মাধ্যমে ভবিষ্যতে পাঠদান করার পরিকল্পনা আছে।

যোগাযোগ (ইমেইল এড্রেস, ফোন, মোবাইল, ফ্যাক্স সহ)

ফোন : 0941-61820

মোবাইল : 01718 16 20 60