মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C

মুক্তিযুদ্ধে গণহত্যার স্মারক বরইতলা বধ্যভূমি

মুক্তিযুদ্ধকালীন হানাদার পাকিস্তানী মিলিশিয়া ও তাদের এ দেশীয় দোসরদের গণহত্যার অন্যতম স্মারক কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলার বরইতলা বধ্যভূমি। ১৯৭১-এর ১৩ অক্টোবর তদানীন্তন মহকুমা আলবদর বাহিনীর নেতৃবৃন্দের ইন্ধনে পাক মিলিশিয়া বাহিনী দামপাড়া, চিকনীরচর, গোবিন্দপুর, কড়িয়াইল, বাদে কড়িয়াইল, তিলকনাথপুর এবং কালিকাবাড়িসহ সন্নিহিত অন্যান্য গ্রামের অন্তত সাড়ে তিনশত নিরীহ বাঙালিকে এই বধ্যভূমিতে নৃশংসভাবে হত্যা করে। স্বাধীনতার পর স্থানীয় অধিবাসীরা অকুতোভয় শহীদদের স্মরণে এই এলাকার নাম রাখেন শহীদনগর। বরইতলার অমর শহীদদের স্মরণে সরকারি অর্থায়নে সেখানে নির্মিত হয়েছে শহীদদের নামফলকসহ স্মৃতিস্তম্ভ। প্রতিবছর ১৩ অক্টোবরকে নানা কর্মসূচির মাধ্যমে বরইতলা গণহত্যা দিবস হিসেবে পালন করা হয়।

যোগাযোগ ব্যবস্থা (বড়ই তলা)

দূরত্ব

সময়

ভাড়া

গাইটাল/বত্রিশ বাস স্ট্যান্ড (কিশোরগঞ্জ) – একরামপুর

১.৩ কি.মি.

২০ মিনিট

অটো ভাড়া ১০/- টাকা

রিক্সা ভাড়া ৩০/- টাকা

একরামপুর/ রেল স্টেশন – বড়ই তলা(নিকলী উপজেলা রোড)

১০ কি.মি

২০ মিনিট

অটো ভাড়া ২০/- টাকা

সিএনজি ভাড়া ৩০/- টাকা

গ্রন্থনাঃ জাহাঙ্গীর আলম জাহান, উচ্চমান সহকারী, শিক্ষা ও কল্যাণ শাখা